ঘরোয়া চিকিৎসা, বয়স্কদের স্বাস্থ্য, মানসিক স্বাস্থ্য

মস্তিষ্কের ক্ষমতা বৃদ্ধি করার সেরা ১০টি উপায়

“আজকে যেন কী কী রান্না করবো!”; “বাজার করতে এসেছি বাজারের ব্যাগটা সাথে আনতেই ভুলে গেছি” মস্তিষ্কের ক্ষমতা কমে যাওয়া একটু মাঝারী বয়সের মানুষের জন্য যেন আবশ্যক। ক্ষণে ক্ষণে এরকম ভুলের কারণে আমরা প্রায়ই কোন না কোন সমস্যার মধ্যে পড়ে যাই।

কিন্তু আপনি কি জানেন? এমন কিছু পদ্ধতি আছে যা আপনার মস্তিষ্কের ক্ষমতা বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। চলুন তবে জেনে নিই কী সেই উপায়গুলো-

সেরা ১০টি উপায়

১। ব্যায়াম

আপনার মনের সাথে শরীর যেন ওতপ্রোত ভাবে জড়িত। বিভিন্ন ক্ষেত্রে দেখা গেছে যে ব্যায়াম করার পরের ৩০-৬০ মিনিট মস্তিষ্কের ক্ষমতা সর্বোচ্চ থাকে। ব্যায়াম করলে এন্ডোরফিন নামক এক ধরণের হরমোন নিঃসৃত হয় যা আমাদের মস্তিষ্ককে সতেজ রাখতে সাহায্য করে।

২। হাইড্রেশন

শুধু মস্তিষ্কের ক্ষমতাই নয় শরীরের সব অঙ্গ-প্রত্যঙ্গের কার্যক্ষমতা স্বাভাবিক রাখতে শরীরকে হাইড্রেটেড রাখা প্রয়োজন। নিয়মিত পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি পান করুন।

৩। খাবার

কিছু কিছু খাবার আছে যা আপনার মস্তিষ্কের ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে। যেমন- কলা, ডার্ক চকলেট, পালং শাক, সবুজ শাকসবজি, বাদাম ইত্যাদি।

৪। ঘুম

শরীরের সাথে সাথে মনেরও বিশ্রামের প্রয়োজন হয়। তাই নিয়মিত প্রতিদিন পর্যাপ্ত পরিমাণে ঘুমান। তাহলে মস্তিষ্ক সচল থাকবে।

৫। দুশ্চিন্তামুক্ত থাকুন এবং হাসুন

দুশ্চিন্তাগ্রস্থ থাকলে আমাদের শরীর সঠিক নিয়মে কাজ করতে পারেনা। এছাড়া এর ফলে শরীরে বিভিন্ন অপকারী হরমোন নিঃসৃত হয় যা আমাদের শরীর ও মনের ক্ষতিসাধন করে। তাই মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা স্বাভাবিক রাখতে দুশ্চিন্তামুক্ত থাকুন।

এছাড়া হাসতে থাকলেও আমাদের শরীরে এন্ডোরফিন নামক হরমোন নিঃসরণের পরিমাণ বৃদ্ধি পায় যা আমাদের মস্তিষ্কের ক্ষমতা বৃদ্ধি করে।

৬। বই পড়ুন

যদিও খুবই মজার একটা কাজ বই পড়া তবুও অনেকেই এর প্রতি অনাগ্রহী। বই বা অন্য কোন কিছু পড়লেও মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা বৃদ্ধি পায়।

৭। রুটিন ভাঙ্গুন

যদি আপনি মনে করেন যে আপনার জীবন এক ঘেয়ে হয়ে গেছে তাহলে আপনার রুটিন পরিবর্তন করুন। একঘেয়ে রুটিনে চলতে থাকলে মস্তিষ্কও একঘেয়ে হয়ে যায়। ফলে এটি নতুন কিছু করার ক্ষমতা হারিয়ে ফেলতে থাকে।

৮। গান শুনুন

গবেষণায় পাওয়া গেছে যে মস্তিষ্কের ক্ষমতা বৃদ্ধির সবচেয়ে সহজ এবং কার্যকরী পদ্ধতি হলো গান শোনা। গান আপনার মস্তিষ্কের নির্দিষ্ট কিছু কিছু স্থানের কার্যক্ষমতা বৃদ্ধি করে। এছাড়া গান শুনতে শুনতে মানুষ বিভিন্ন কাজও করতে থাকে যা আপনার ব্রেইনের কার্যক্ষমতা আরো বৃদ্ধি করে।

৯। হাতে লিখুন

আধুনিক যুগে হাতে লেখার অভ্যাস একেবারে নেই বললেই চলে। হাতে লিখতে থাকলে আপনার ব্রেইনের কয়েকটি অংশ একই সাথে কাজ করতে থাকে যা আপনার মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে।

১০। যৌন সঙ্গম

অনেকেই হয়তোবা যৌন সঙ্গমকে শুধুমাত্র প্রজননের মাধ্যম ভাবেন। কিন্তু এর ফলে আপনার মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা আরো বৃদ্ধি পেতে পারে। যৌন সঙ্গমের সময় আমাদের শরীরে সেরোটোনিন এবং অক্সিটোসিন নামক হরমোন নিঃসৃত হতে থাকে যা আমাদের মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা বৃদ্ধিতে সাহায্য করে।

Comments

comments

Previous Post Next Post

You Might Also Like

Comments are closed.