আচরণগত সমস্যা, জীবনযাত্রা, মানসিক স্বাস্থ্য

হীনমন্যতা কেন হয়?

“আমার দ্বারা কিছু হবে না!” এই ধরনের নেতিবাচক মনোভাব যখন কোন ব্যক্তির রন্ধ্রে রন্ধ্রে ঢুকে যায়, তখন বুঝে নিতে অসুবিধা হয় না যে তিনি হীনমন্যতায় ভুগছেন। হীনমন্যতা মানুষকে তার নিজস্ব সত্তা ভুলিয়ে দেয়। যে ব্যক্তি হীনমন্যতায় ভোগেন, সে পরিবার, সমাজ বা কর্মক্ষেত্র সব জায়গাতেই নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে ব্যর্থ হন।

হীনমন্যতা কী?

লক্ষণটিকে আমরা পরনির্ভরশীল হওয়া, অপরাধবোধে ভোগা, অসহায় বোধ করা, পরিচয় সঙ্কটে ভোগা, নিরাপত্তাহীনতায় ভোগা, অনুপ্রেরণার অভাব ও আত্মবিশ্বাসের অভাব হিসেবেও চিনি।

মনোবিজ্ঞানের ভাষায় আত্মসম্মান বলতে নিজের মর্যাদা সম্পর্কে একজন ব্যক্তির মনোভাব বোঝানো হয়। সাফল্য, হতাশা, অহংকার ও লজ্জার অনুভূতি এই মনোভাব গঠন করে। একজন ব্যক্তির আত্মসম্মান তার আত্মসচেতনতার সাথে ওতপ্রোতভাবে জড়িত। আত্মসম্মানের অভাব বা হীনমন্যতা একজন ব্যক্তির সম্পর্ক, পেশা ও শারীরিক অবস্থাসহ জীবনের প্রত্যেকটি অংশে নেতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারে। তবে মেন্টাল হেলথ্ কাউন্সিলিং (mental health counseling) এর মাধ্যমে এই সমস্যা দূর করা সম্ভব।

হীনমন্যতার লক্ষণের সাথে অন্যান্য আরও কি কি লক্ষণ দেখা দিতে পারে?

  • অবসাদ, হতাশা, উদ্বিগ্নতা এবং দুশ্চিন্তাগ্রস্থতা।
  • হতাশাগ্রস্থ বা পাগলের মত আচরণ করা।
  • অতিরিক্ত এবং খুবই তাড়াতাড়ি রেগে যাওয়া।
  • অধিক মাত্রায় মদ্যপান করা।
  • কোন কিছু করার প্রবল ইচ্ছা কিন্তু করতে না পারা।
  • ডিলিউশন বা হ্যালুসিনেশন দেখা।
  • ফোবিয়া বা ভয় বেড়ে যাওয়া।
  • খাওয়ার রুচি কমে যাওয়া।
  • অনেকে হতাশায় পড়ে ড্রাগ অ্যাডিকটেড হয়ে যায়।

কী কী কারণে আপনার হীনমন্যতা হতে পারে?

  • কোন কিছু করতে না পারার উদ্বেগ বা ভয়।
  • হতশা বা ডিসথেমিয়া।
  • অ্যাটেনশন ডিফিসিট হাইপারঅ্যাকটিভিটি ডিজঅর্ডার (Attention deficit hyperactivity disorder (ADHD)) যা আমাদের মস্তিস্কে প্রভাব ফেলে। ফলে আমরা মনোযোগ এবং মেজাজ ঠিক রাখতে পারিনা।
  • বাইপোলার এবং পারসোনালিটি ডিজঅর্ডার।
  • আশেপাশের পরিবেশের সাথে খাপ খাইয়ে নিতে সমস্যা হলে।
  • পূর্বের কোন ভয়ানক স্মৃতি কষ্ট দিতে থাকলে বা পোষ্ট ট্রমাটিক স্ট্রেস ডিজঅর্ডার (Post-traumatic stress disorder (PTSD)) ।

কোন কোন বিষয়গুলো হীনমন্যতা হওয়ার প্রবণতা বাড়িয়ে দেয়?

  • শৈশবের শুরুতেই আত্মসম্মান গঠনের সূত্রপাত ঘটে। যেসব বিষয় হীনমন্যতা বা আত্মসম্মানকে প্রভাবিত করতে পারে সেগুলি হলোঃ
  • নিজের চিন্তা ও উপলব্ধি।
  • অন্য ব্যক্তিদের আচরণ।
  • বাড়ি, স্কুল, কর্মক্ষেত্র এবং সামাজিক ক্ষেত্রের অভিজ্ঞতা।
  • অসুস্থতা, অক্ষমতা ও আঘাত।
  • ধর্ম ও সংস্কৃতি।
  • সামাজিক অবস্থান ও ভূমিকা।
  • মিডিয়ার প্রভাব।

বাবা-মা, ভাইবোন, বন্ধু, শিক্ষক ও অন্যান্য পরিচিত ব্যক্তিদের সাথে সম্পর্ক আপনার আত্মসম্মানকে প্রভাবিত করে। নিজের সম্পর্কে আপনার যে ধারণা, তা অনেকাংশে আপনার সম্পর্কে এইসব ব্যক্তিদের ধারণার প্রতিফলন। অন্য ব্যক্তিদের সাথে আপনার সম্পর্ক যদি ভালো থাকে, তাহলে নিজের সম্পর্কে আপনার ধারণা ইতিবাচক হবে এবং আপনার আত্মসম্মান বৃদ্ধি পাবে। আপনার সম্পর্কে যদি অন্য ব্যক্তিরা নেতিবাচক মন্তব্য করে এবং আপনি যদি তাদের দ্বারা অবমূল্যায়িত ও সমালোচিত হন, তাহলে আপনি আত্মসম্মানের অভাবে ভুগতে পারেন; আপনার হীনমন্যতা হতে পারে।

কসমেটিক সার্জারি করা হলে কী আত্মসম্মানের অভাবে ভোগার সম্ভাবনা থাকে?

সার্জারি শারীরিক সমস্যার সমাধান করতে পারে। কিন্তু আত্মসম্মানের অভাব বা হীনমন্যতা যেহেতু মানসিক সমস্যা, তাই এর উপর সার্জারির কোনো প্রভাব নেই।

শারীরিক বিকৃতির ফলে কোনো ব্যক্তির আত্মসম্মানের অভাব হলে সার্জারি করার পর তিনি উপকৃত হতে পারেন। কিন্তু অন্য কোনো কারণে আত্মসম্মানের অভাব দেখা দিলে তা সার্জারির মাধ্যমে সমাধান করা সম্ভব নয়।

টিনএজের পূর্বে কেনো শিশুরা আত্মসম্মানের অভাবে ভোগে?

এই বয়সের সব শিশুদের উল্লিখিত সমস্যাটি থাকে না। তাছাড়া আত্মসম্মানের আলাদা আলাদা মাত্রা রয়েছে। তাই বিষয়টি একজন শিশুর অভিজ্ঞতা ও পরিপার্শ্বের উপর নির্ভর করে।

হীনমন্যতা দূর করতে কী কী পদক্ষেপ নেয়া যেতে পারে?

  • আপনার জন্য সমস্যা সৃষ্টি করে এমন পরিস্থিতি ও মুহূর্ত চিহ্নিত করুন।
  • মাথায় কি ধরনের দুশ্চিন্তা ও ভয় কাজ করে সেগুলো লিখে রাখুন।
  • কোন বন্ধু বা আপনজনের সাথে হীনমন্যতা সম্পর্কিত ব্যাপারগুলো নিয়ে আলোচনা করুন।
  • আপনার আশেপাশে, দেয়ালে বা পড়ার টেবিলে পজিটিভ কথা লিখে লাগিয়ে রাখতে পারেন।
  • আপনাকে কোন কিছু করতে উৎসাহী করে এমন বই বা খবরের কাগজ পড়ুন।
  • নিজেকে সাহস দিন যে আপনি পারবেন।
  • আপনার যা করতে খুবই ভাল লাগে সেটা করতে থাকুন।

Comments

comments

পূর্ববর্তী পোস্ট পরবর্তী পোস্ট

আপনি হয়ত এগুলো পছন্দ করতে পারেন

কোন মন্তব্য নেই

উত্তর দিন