খাদ্য ও পুষ্টি, গাইনী সমস্যা এবং নারী স্বাস্থ্য, ঘরোয়া চিকিৎসা, ঘরোয়া টিপস্‌, জীবনযাত্রা, পুরুষ স্বাস্থ্য, ফিটনেস, যৌন স্বাস্থ্য, স্বাস্থ্য সমস্যা

ইউরিন ইনফেকশন ; আপনিও ভুগছেন?

ইউরিন ইনফেকশন  বা মুত্রনালির সংক্রমণ  এর একমাত্র সমাধান কি অ্যান্টিবায়োটিক? অনেকে তাই মনে করেন। ইউরিন ইনফেকশন খুব-ই বিরক্তিকর একটি রোগ। মূলত মেয়েরাই এই সমস্যায় ভোগে। একবার এই রোগ ধরা পড়লে সারা জীবন ঘানি টানতে হয়। তবে ঘরোয়া ভাবে একটু সচেতনতার মাধ্যমে এই যন্ত্রণা অনেকটাই কমিয়ে আনা যায়।

ইউরিন ইনফেকশন কমিয়ে আনার ঘরোয়া উপায়গুলো কী ?

পানি! পানি!! পানি!!!

প্রচুর পরিমাণে পানি পান করুন। পানি শরীরে ইনফেকশন সৃষ্টিকারী ক্ষতিকারক ব্যাকটেরিয়া বের করে দিতে সাহায্য করে যা ইউরিন ইনফেকশন কমিয়ে আনে।

মুত্রত্যাগে দেরি নয় !

প্রস্রাব আসলে চেপে রাখবেন না। প্রস্রাব শরীরের ভেতরে থাকলে ইনফেকশন হওয়ার সম্ভাবনা বৃদ্ধি পেতে থাকে। প্রত্যেকবার প্রস্রাবের সাথে কিছু কিছু ব্যাকটেরিয়া শরীর থেকে বের হয়ে যায়। তাই যথা সময়ে প্রস্রাব করা খুব-ই জরুরী।

ভিটামিন ‘সি’-র উপকারিতা !

প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি যুক্ত খাবার খান। ভিটামিন সি প্রস্রাবকে অম্লীয় বা অ্যাসিডিক করে তোলে, ফলে শরীরের ক্ষতিকারক ব্যাকটেরিয়াগুলো মারা যায়।

ঢিলেঢালা পোশাক পরুন !

আপনার পরিধেয় কাপড়ের দিকে নজর রাখুন। অতিরিক্ত আঁটসাঁট কাপড় পরিধান করলে ইউরিন ইনফেকশন গুরুতর আকার ধারণ করতে পারে। ঢিলাঢালা আরামদায়ক কাপড় পড়া উচিৎ।

খাবার খান বুঝেসুঝে !

যে সকল খাবার ইউরিনারি ট্র্যাক্ট অর্থাৎ মুত্রনালিতে অস্বস্তি সৃষ্টি করে সে সকল খাবার খাওয়া বন্ধ রাখুন। যেমন- ক্যাফেইন, অ্যালকোহল, কার্বোনেটেড ড্রিংকস, মশলাযুক্ত খাবার, নিকোটিন ইত্যাদি।

আরও……

ধূমপান মদ্যপান ত্যাগ করুন। নিয়মিত ব্যায়াম করুন। ঢিলাঢালা সুতির অন্তর্বাস ব্যবহার করুন। পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকুন।

বেকিং সোডা

৮ আউন্স পরিষ্কার পানিতে ১ চা চামচ বেকিং সোডা মিশিয়ে পান করলে হৃৎপিণ্ডের জ্বালা-পোড়া ব্যতীত শরীরের অন্য যেকোনো জ্বালা-পোড়া কমে যায়। তবে অতিরিক্ত বেকিং সোডা শরীর খারাপের কারণ হতে পারে। তাই পরিমাণমত বেকিং সোডা ব্যবহার করুন।

Comments

comments

Previous Post Next Post

You Might Also Like

Comments are closed.