জীবনযাত্রা, পরিবেশ দূষণ, সামাজিক সচেতনতা, সাম্প্রতিক

গরুর চামড়া প্রক্রিয়াজাত করবেন কীভাবে?

ইসলাম ধর্মের সবচেয়ে বড় উৎসবের নাম ঈদ-উল-আযহা। এই দিনে আল্লাহর প্রতি তাকওয়া ও শ্রদ্ধা নিবেদন করে আমারা গৃহপালিত পশু কোরবানি দেই। কোরবানির মাংস নিয়ে আমরা যতটা আগ্রহী থাকি, চামড়া প্রক্রিয়াজাত করতে আমাদের যেন ততটাই আলসেমি। বাজারে গরুর চামড়া বেশ ভাল দামে বিক্রি করা যায়। একটু অসাবধানতা আপনার কোরবানির গরুর চামড়ার জন্য ক্ষতি ডেকে আনতে পারে।

ঘরোয়া পদ্ধতিতে চামড়া প্রক্রিয়াজাতকরণের নিয়ম

প্রথমেই দেখবেন চামড়ার উপর মাংস, চর্বি বা অন্য কোন কিছু লেগে আছে কিনা। লেগে থাকলে তা ধারালো কোন ছুরি দিয়ে ছাড়িয়ে নিবেন। তবে খেয়াল রাখবেন যেন চামড়ার কোন ক্ষতি না হয়।

অতিরিক্ত অংশ ছাড়িয়ে নেওয়ার পর চামড়াটিকে জীবাণুমুক্ত রাখার জন্য পানি এবং ব্লিচিং পাউডার মিশিয়ে চামড়ার উপর ছিটিয়ে দিবেন। ৫ থেকে ১০ বালতি মিশ্রণ হলেই হবে(প্লাস্টিকের বালতি হলে ভাল)। এভাবে ২৪ ঘণ্টা রেখে দিন।

এক দিন পর পানি দিয়ে গরুর চামড়া ভাল করে ধুয়ে ফেলুন। কোন ভাবেই যেন ব্লিচিং পাউডার না থাকে। এর পর খনিজ লবণ এবং পানি মিশিয়ে চামড়ার উপর ছিটিয়ে দিন। আরও ২৪ ঘণ্টা রাখার পর ধুয়ে ফেলুন।

এবার গরুর চামড়া শুকিয়ে টেবিলের উপর টানটান করে রাখুন। পশমের দিকটা নিচে এবং চামড়ার দিকটা উপরে রাখুন। এর উপর লবণ ঘষে পুরো চামড়াটি লবণ দিয়ে ঢেকে দিন। লবণ ঢালার মাত্রা হবে ১:১ অর্থাৎ এক পাউন্ড চামড়ার উপর এক পাউন্ড লবণ ঢালবেন। খেয়াল রাখবেন যেন কোন অংশ বাদ না যায়।

এইভাবে ২ সপ্তাহ রাখার পর রোদে শুকাতে হবে। এভাবে কয়েক দিন রাখলেই চামড়াটি ব্যবহারের উপযোগী হবে। এরপর আপনি এটাকে যেভাবে ব্যবহার করতে চান করতে পারেন।

অন্যান্য প্রাণীদের ক্ষেত্রেও একই উপায়ে ঘরে বসে চামড়া প্রস্তুত করতে পারেন।

Comments

comments

Previous Post Next Post

You Might Also Like

Comments are closed.